Tor Browser: টর ব্রাউজার কি - টর ব্রাউজারের কাজ কি

তথ্য প্রযুক্তি নির্ভরশীল দুনিয়াতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে, আর যত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ছে ততই ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার ঝুকি তৈরি হচ্ছে । ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা প্রতিনিয়ত হ্যাকার থেকে শুরু করে বিভিন্ন ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার এবং ওয়েব ব্রাউজিং এর ক্ষেত্রে হয়রানির শিকার হচ্ছে। তাই আমরা যদি আমাদের পরিচয় গোপন রেখে ইন্টারনেটে বিভিন্ন কাজ করি তাহলে হ্যাকারদের হাত থেকে আমাদের অনেকটাই সুরক্ষা নিশ্চিত হবে।

অনলাইনে নিজের পরিচয় গোপন রেখে ব্যক্তিগত বা অফিশিয়াল কাজ করার জন্য সবচেয়ে সহজ এবং তাৎক্ষণিক সমাধান হচ্ছে টর ব্রাউজার। টর ব্রাউজার একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সম্পূর্ণ পরিচয় গোপন রেখে ইন্টারনেট এক্সেস করার সুবিধা প্রদান করে। যদিও বিভিন্ন অপরাধীরা টর ব্রাউজার ব্যবহার করে বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজ করে থাকে, তারপরও সাধারণ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা এর অনেক সুবিধা এবং প্রয়োজনীয় সেবা গ্রহণ করতে পারে।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, টর ব্রাউজার কি, টর ব্রাউজার এর কাজ কি, টর ব্রাউজার কিভাবে ব্যবহার করতে হয় এবং এর সুবিধা অসুবিধাসহ আরো নানা বিষয়। প্রিয় পাঠক এ সমস্ত বিষয় জানার জন্য আজকের আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ার অনুরোধ রইলো।

পেজ সূচিপত্রঃ টর ব্রাউজার কি | টর ব্রাউজারের কাজ কি

টর ব্রাউজার কি

Tor Browser এর সম্পূর্ণরূপ হচ্ছে The Onion Router এটি এক ধরনের ইন্টারনেট ব্রাউজার যা একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীকে তার সম্পূর্ণ পরিচয় গোপন রেখে ইন্টারনেটে অ্যাক্সেস করার সুবিধা প্রদান করে। এই ব্রাউজার ব্যবহার করার মাধ্যমে একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী তার IP Address গোপন রেখে যেকোন গোপন সাইট বা তথ্য এক্সেস করতে পারে। Tor Browser সম্পূর্ণ ফ্রি এবং ওপেন সোর্স একটি ব্রাউজার যা একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর পরিপূর্ণ গোপনীয়তা বজায় রেখে ওয়েব ব্রাউজিং করতে সহায়তা প্রদান করে।

আপনি যে সকল ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে অক্ষম, টর ব্রাউজার ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি খুব সহজে সেসকল ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারবেন। যেহেতু টর ব্রাউজার একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীকে নিঃশর্তে এবং স্বাধীনভাবে বিশ্বের যে কোন ওয়েবসাইট অ্যাক্সেস করতে সহায়তা করে, তাই ইন্টারনেটে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নিরোধনের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অভ্যন্তরীণভাবে টর ব্রাউজার ব্যবহার নিষিদ্ধ

টর ব্রাউজার এর কাজ কি

বর্তমানে টর ব্রাউজার একটি শক্তিশালী এবং জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার। এই টর ব্রাউজার এর মূল কাজ হল একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর পরিচয় গোপন রেখে অনলাইনে বিভিন্ন সাইট এক্সেস করা অর্থাৎ একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর শতভাগ সুরক্ষা নিশ্চিত করাই হলো এই ওয়েব ব্রাউজারের মূল কাজ। এছাড়াও এর আরো কিছু কাজ রয়েছে যেমনঃ

  • টর ব্রাউজার ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর IP Address হাইড করে রাখে। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর পরিচয় গোপন রাখে।
  • ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সকল কুকি এবং ব্রাউজিং হিস্ট্রি অটোমেটিক মুছে ফেলে।
  • ইন্টারনেট ব্যবহারকারীকে হ্যাকার এবং সকল ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারদের হাত থেকে সুরক্ষা প্রদান করে।
  • সকল Blocked এবং Un-Indexed ওয়েবসাইট দেখতে সুবিধা প্রদান করেন।
অর্থাৎ টর ব্রাউজার ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি ইন্টারনেটের যেকোনো ওয়েবসাইট এক্সেস করতে পারবেন আপনার পরিচয় শতভাগ গোপন রাখার মাধ্যমে।

টর ব্রাউজার কিভাবে কাজ করে

টর ব্রাউজার এর প্রধান লক্ষ্য হলো ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর শতভাগ সুরক্ষা প্রদান করা। এটি মূলত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর IP হাইড করার মাধ্যমে করে থাকে। টর ব্রাউজারের কতগুলো নির্দিষ্ট সার্ভার রয়েছে যাদেরকে nodes বা relay বলা হয়ে থাকে। যেমনঃ

  • টর নেটওয়ার্ক নোড/(Tor Network node)
  • ক্লায়েন্ট নোড/(Client node)
  • এন্ট্রি নোড/(Entry node
  • রিলে নোড/(Relay node)
  • এক্সিট নোড/(Exit node)
প্রথমে একজন টর ব্যবহারকারীকে টর নেটওয়ার্ক এর মধ্যে প্রবেশ করতে হয়। যখন ওই ব্যবহারকারী ওয়েবসাইট ব্রাউজ করার জন্য বার্তা পাঠায় তখন ব্যবহারকারীর সমস্ত ডাটা ক্লাইন্ট নোড থেকে এন্ট্রি নোডে প্রবেশ করে এবং সমস্ত ডাটা এনক্রিপ্টেড (Encrypted) হয়ে যায়।
এই সমস্ত ডাটা এবং ট্রাফিককে কিছু নির্দিষ্ট কোডে রূপান্তরিত করে যা হ্যাকারদের দ্বারা ট্র্যাক করা সম্ভব হয় না। এভাবে যখন ডাটা গুলো সমস্ত নোড পার হয়ে এক্সিট নোডে প্রবেশ করে তখন কোড গুলো ডিকোড হয়ে যায় এবং ওয়েবপেজ টি ব্যবহারকারীর জন্য ওপেন হয়ে যায়। এভাবে টর ব্রাউজার একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর পরিচয় সম্পর্ণ গোপন রেখে বিভিন্ন ওয়েবসাইট এ ব্রাউজ করার সুবিধা প্রদান করে দেয়।

টর ব্রাউজার এর সুবিধা ও অসুবিধা

টর ব্রাউজার ব্যবহারে যেমন অনেক সুবিধা রয়েছে ঠিক তেমনি অনেক অসুবিধাও রয়েছে। এ পর্যায়ে আমরা টর ব্রাউজার এর সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কথা বলবো। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক টর ব্রাউজারের সুবিধাগুলো।

টর ব্রাউজারের সুবিধা

  • টর ব্রাউজার সম্পূর্ণ ফ্রি এবং ওপেন সোর্স একটি সফটওয়্যার যার কারণে এটি সবাই ব্যবহার করতে পারে।
  • এটি ব্যবহার করার মাধ্যমে যেকোনো ব্লক করা ওয়েবসাইট সহজে ওপেন করা যায়।
  • IP হাইড থাকার কারণে ব্যবহারকারীর পরিচয় সম্পর্ণ গোপন থাকে।
  • এটি ইংরেজি ছাড়াও বিভিন্ন ভাষায় ব্যবহার করা যায়।
  • এটির উইন্ডোজ, লিনাক্স এবং ম্যাক সব ধরনের সংস্করণ আছে।
  • এর মাধ্যমে বিভিন্ন ডার্ক ওয়েবসাইট (Dark Web) ভিজিট করা সম্ভব।
টর ব্রাউজারের অসুবিধা

  • টর ব্রাউজার সবসময় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা বজায় রাখতে নাও পারে
  • সহজেই যেকোনো ডিভাইসে ভাইরাস সংক্রামন ঘটাতে পারে।
  • এটি অন্যান্য ব্রাউজারের তুলনায় অনেক ধীরগতির হতে পারে কারণ এটি অনেকগুলো নোড পার করে তারপরে ওয়েব পেজটি খুলে দেয়।
  • এছাড়াও টর ব্রাউজারে বিভিন্ন রকমের লিংক রয়েছে যা হ্যাকারদের তৈরি করা এক একটি ফাঁদ। যেখানে প্রবেশ করার সাথে সাথে আপনার সকল তথ্য হ্যাকারদের কাছে চলে যাওয়া সম্ভাবনা রয়েছে।
টর ব্রাউজার ব্যবহার করা সব সময় সঠিক হবে তা কিন্তু নয়। তাই অনলাইন জগতে হ্যাকারদের হাত থেকে সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য টর নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার পূর্বে অবশ্যই একটি ভাল মানের ভিপিএন(VPN) ব্যবহার করুন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url