মাথা যন্ত্রণা কমানোর ঘরোয়া উপায় - মাথা ব্যাথার দোয়া

দৈনন্দিন জীবনের কাজ থেকে শুরু করে মানসিক চাপ বিভিন্ন কারণে মাথাব্যথা হয়ে থাকে। তবে যে কারণেই মাথা ব্যথা হোক না কেন এটি মানুষের জন্য একটি বিরক্তিকর এবং যন্ত্রণাদায়ক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। এরকম যন্ত্রণাদায়ক পরিস্থিতিতে যাতে আপনাকে পড়তে না হয় সেজন্য মাথা যন্ত্রণা কমানোর কয়েকটি ঘরোয়া উপায় রয়েছে। এছাড়া আমাদের মধ্যে যারা মুসলিম ধর্মাবলম্বী রয়েছেন তাদের জন্য মাথা ব্যাথার একটি দোয়া রয়েছে। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক মাথা যন্ত্রণা কমানোর ঘরোয়া উপায় এবং মাথা ব্যাথার দোয়া সম্পর্কে।


পেজ সূচিপএঃ মাথা যন্ত্রণা কমানোর ঘরোয়া উপায় | মাথা ব্যথার দোয়া

পর্যাপ্ত পানি পান করা

আমাদের প্রত্যেকটি মানুষের উচিত প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পান করার দিকে খেয়াল রাখা। শরীরে পানির ঘাটতি দেখা দিলে বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। তার মধ্যে সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো ডিহাইড্রেশন। এই ডিহাইড্রেশন মাথা ব্যাথার অন্যতম প্রধান কারন। বিভিন্ন গবেষণায় বিজ্ঞানীরা জানতে পেরেছেন যে মাথা ব্যথা হলে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করলে এই সমস্যা অনেকটাই কমে আসে। এছাড়া আপনি প্রতিদিন তরল যুক্ত খাবার খেতে পারেন যা আপনার পানির চাহিদা অনেকটাই পূরণ করে দেবে। এভাবে আপনি যদি নিয়ম মেনে প্রতিদিন পানি পান করেন তাহলে মাথা যন্ত্রণা কমে আসবে।


ম্যাগনেসিয়াম যুক্ত খাবার

আমাদের শরীরের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এবং উপকারী একটি পদার্থ হল ম্যাগনেসিয়াম। তবে আমরা এই ম্যাগনেসিয়ামকে খুব বেশি পাত্তা দিই না। এই গুরুত্বপূর্ণ খনিজ পদার্থ শরীরে ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করে। এছাড়া ম্যাগনেসিয়াম নার্ভের ট্রান্সমিশনের কাজেও সাহায্য করে। বিভিন্ন ডক্টরের মতামতের ভিত্তিতে জানা গেছে যে শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি হলে মাথাব্যথা হয়। তাই আমাদের সকলের উচিত বেশি বেশি ম্যাগনেসিয়াম যুক্ত খাবার খাওয়া।


মদ্যপান পরিহার করা

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা মদ্যপান করেন, কিন্তু এই মদ্যপান সম্পর্ণ হারাম এবং একটি খারাপ অভ্যাস। মদ পান করলে শরীরে প্রদাহ সৃষ্টি হয়। এছাড়া এটি রক্তনালীকে বড় করে দেয়। মদ পান করলে শরীরে বিভিন্ন জায়গায় ক্যান্সার সৃষ্টি হয়। এজন্য প্রতিটি মানুষকে মদ পান করা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়। একটি গবেষণায় উঠে এসেছে যে মদ পান করার ফলেও মাথা ব্যথা হয়। সুতরাং আমাদের সকলের উচিত মদ্যপান পরিহার করা


পর্যাপ্ত ঘুম পাড়া

ঘুম প্রতিটি মানুষের জন্য খুব জরুরী। ঘুমের মাধ্যমে মানুষের শরীরের সকল ক্লান্ত দূর হয়ে যায় এবং মনকে সতেজ রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু এই ঘুমের সমস্যা যদি একবার তৈরি হয় তাহলে মানব শরীরের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। যার মধ্যে অন্যতম একটি বড় সমস্যা হল মাথাব্যথা। একটি গবেষণায় বলা হয়েছে যে ঘুম কম হলে বা ইনসোমেনিয়া থাকলে মাথাব্যথা হওয়ার ঝুঁকি অনেকটাই বেড়ে যায়। তাই আমাদের সকলের উচিত প্রতিদিন অন্তত ৭-৮ ঘন্টা ঘুম পাড়া


হিস্টামাইন যুক্ত খাবার না খাওয়া

হিস্টামাইন একটি রাসায়নিক পদার্থ। এই রাসায়নিক পদার্থ শরীরে উপস্থিত থাকে। এটির পরিমাণ বাড়লে শরীরে নানা সমস্যা তৈরি হয় যেমনঃ ইমিউনিটি কমে যায়, পেট খারাপ হয় এবং স্নায়ুতন্ত্রে সমস্যা দেখা দেয়। আবার এর পরিমাণ বাড়লে মাথা ব্যথাও হয়। তাই এই বিষয়ের ওপর নজর রেখে আমাদের হিস্টামাইন যুক্ত খাবার কম খাওয়া উচিত।


এখন আমরা আলোচনা করবো মাথা ব্যথার দোয়া সম্পর্কে। আমাদের মধ্যে যারা মুসলিম ধর্মাবলম্বী আছেন তাদের জন্য ওপরের মাথা যন্ত্রণা কমানোর ঘরোয়া উপায় গুলোর পাশাপাশি মাথা ব্যথা কমানোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো মাথা ব্যথার দোয়া। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক মাথা ব্যথার দোয়া কি?

মাথা ব্যথার দোয়া

“লা ইউসাদ্দাউনা আনহা ওয়া লা ইয়ুংযিফুন”,(সুরা ওয়াকিয়াঃ আয়াত ১৯)

যদি আপনার মাথা ব্যথা হয়ে থাকে তাহলে ডান হাত দিয়ে আপনার মাথা চেপে ধরে ৩ বার এই দোয়াটি পড়ুন, ইনশাআল্লাহ আল্লাহর রহমতে আপনার মাথা ব্যাথা ভালো হয়ে যাবে।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url