Dark Web: ডার্ক ওয়েব কি - ডার্ক ওয়েব কিভাবে ব্যবহার করতে হয়

 আমরা যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করি তাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষই মনে করেন যে ইন্টারনেট বলতে শুধুমাত্র গুগল,ইউটিউব,ফেসবুক বা অন্যান্য ওয়েব ব্রাউজারকেই বোঝাই। কিন্তু এর বাইরেও যে ইন্টারনেটের একটা বিশাল অংশ আছে তা আমরা অনেকেই জানিনা। ঠিক তেমনি আমাদের অজানার বাইরের একটি রহস্যময় জিনিস হলো ডার্ক ওয়েব। আপনার যদি ডার্ক ওয়েব সম্পর্কে জানার আগ্রহ থেকে থাকে তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক ডার্ক ওয়েব কি এবং ডার্ক ওয়েব কিভাবে ব্যবহার করতে হয় এবং ডার্ক ওয়েব দিয়ে মানুষ কি কি কাজ করে থাকে!


পেজ সূচিপত্রঃ ডার্ক ওয়েব কি - ডার্ক ওয়েব কিভাবে ব্যবহার করতে হয়

ডার্ক ওয়েব কি

ডার্ক ওয়েব (Dark Web) হল ইন্টারনেটের একটি অংশ যা পাবলিকভাবে অ্যাক্সেস যোগ্য নয়। এটি একটি ক্রিপ্টোগ্রাফিকালি এনক্রিপ্টেড নেটওয়ার্ক যা পাবলিক ওয়েব থেকে সৃষ্টি করে তৈরি হয়েছে। ডার্ক ওয়েবের বেশিরভাগ ওয়েবসাইট এবং সার্ভারগুলি অ্যাননিমাস হয় এবং টোর নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অ্যাক্সেস করা হয়। এই ডার্ক ওয়েবকে ইন্টারনেটের অন্ধকার অংশ বলা হয়ে থাকে।

ডার্ক ওয়েবে অ্যাক্সেস করার জন্য একটি ডার্কনেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হয়, যা পাবলিক ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহৃত প্রোটোকলগুলি থেকে আলাদা হয়। টোর (Tor) একটি পরিচিত ডার্কনেটওয়ার্ক, যা সহজেই ডার্ক ওয়েবে অ্যাক্সেস করার জন্য ব্যবহার করা হয়। টোর আপনার ইন্টারনেট সংযোগকে কয়েকটি অজানা সার্ভারের মধ্যে পাঠায়, যাতে আপনার আইপি ঠিকানা গোপন থাকে এবং আপনি পরিচালকগণের নজর থেকে দূরে থাকেন। এটি অ্যাক্সেস করা ওয়েবসাইটগুলি ডার্কনেটওয়ার্কের মাধ্যমে অ্যাক্সেস করা হয়, যা এনক্রিপ্টেড হয় এবং যেখানে ব্যবহারকারীর সতর্কতা ও গোপনীয়তা বজায় রাখা হয়।
ডার্ক ওয়েবে বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে, যেমন বিতরণ, বিপণিত, নিরাপত্তা বিষয়ক, বৈঠক, তথ্য বিপর্যয়, হ্যাকিং সংক্রান্ত, সাইবার অপপ্রচার এবং অন্যান্য অপ্রকাশিত কার্যকলাপের সাথে সংযুক্ত হয়ে থাকে। এছাড়াও, ডার্ক ওয়েবে ক্রিপ্টোকারেন্সি, হ্যাকিং টুলস, গোপন সংক্রান্ত তথ্য এবং বিভিন্ন ধরণের অপ্রকাশিত তথ্যের জন্য অনুসন্ধান করা হয়।

ডার্ক ওয়েব কিভাবে ব্যবহার করতে হয়

ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করার জন্য কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে। একটি ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করা প্রয়োজন হবে যাতে আপনি অবৈধ ওয়েবসাইটে অ্যাক্সেস করতে পারেন। নীচে আপনার মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম অনুযায়ী ডার্ক ওয়েব ব্রাউজারের ব্যবহার পদ্ধতি দেওয়া হল।

অ্যান্ড্রয়েডঃ
অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করার জন্য আপনি নিচের পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করতে পারেনঃ
1. প্রথমে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে গুগল প্লে স্টোর অ্যাপস টি খুলুন।
2. সার্চ বারে "ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার" টাইপ করুন এবং অ্যাপটি সন্ধান করুন।
3. ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার অ্যাপটি চয়ন করুন এবং "ইনস্টল" বাটনে ট্যাপ করুন।
4. ইনস্টলেশন সম্পূর্ণ হলে অ্যাপটি খুলুন এবং তাহলেই ডার্ক ওয়েবে সংযোগ স্থাপন করতে পারবেন। অ্যাপটি অন্য সাধারণ ওয়েব ব্রাউজার থেকে আলাদা হয়ে থাকবে এবং ডার্ক ওয়েবে অ্যাক্সেস করতে সক্ষম হবেন।
আইফোনঃ
আইফোনে ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করার জন্য নিচের পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করুনঃ
1. প্রথমে App Store অ্যাপস্টোরে যান।
2. সার্চ বারে "ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার" লিখুন এবং অ্যাপটি সন্ধান করুন।
3. ডার্ক ওয়েব ব্রাউজার অ্যাপটি চয়েজ করুন এবং "ইনস্টল" বাটনে ট্যাপ করুন।
4. ইনস্টলেশন সম্পূর্ণ হলে অ্যাপটি খুলুন তাহলে ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করতে পারবেন। এই অ্যাপটি ডার্ক ওয়েবের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে এবং আইফোনের সাথে সংগতিপূর্ণ হবে।

মনে রাখবেন, ডার্ক ওয়েবের ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনার সতর্কতা অবলম্বন
করা উচিত। ডার্ক ওয়েবে অবৈধ কার্যকলাপ এবং আইনের প্রতিষ্ঠানগুলি রয়েছে এবং আপনি আইনের মধ্যে থাকা সাধারণ ওয়েবসাইট নীতিমালা অনুসরণ করবেন। অপরিচিত বা আশঙ্কাজনক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবার আগে পর্যালোচনা করলে সুরক্ষিত থাকবেন।

ডার্ক ওয়েবে কি কি কাজ করা যায়

ডার্ক ওয়েব হলো ইন্টারনেটের একটি অন্ধকার অংশ যেখানে সাধারণ ওয়েব ব্রাউজিং নীতিমালা প্রযোজ্য নয়। এটি একটি অনুধাবনযোগ্য এলাকা যেখানে অনুধাবনযোগ্য ওয়েবসাইট, অনৈক্যবিষয়ক বিপণিত, সামাজিক অপপ্রচার এবং অন্যান্য অবৈধ কার্যকলাপ বিদ্যমান থাকে। ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করা হয়ে থাকে অবৈধ কার্যকলাপ যেমনঃ

১. মারাত্মক বিপণিত এবং ক্রাইম সংক্রান্ত পণ্য বিক্রয় বা সংগ্রহ করা।
২. হ্যাকিং সংক্রান্ত কৌশল বা উপায়ে কোনও ধরণের অন্যান্য অবৈধ কার্যকলাপ।
৩. পীরেটেড সফটওয়্যার, মিউজিক, ফিল্ম বা গেম ডাউনলোড করা বা বিক্রয় করা।
৪. অনুপযুক্ত পর্ণোগ্রাফিক সামগ্রীর বিক্রয় বা বিতরণ।
৫. ড্রাগ বিক্রয় বা বিতরণ, কুকুর লবণ বিক্রয় বা বিতরণ, ধর্ষণ বিষয়ক তথ্য প্রদর্শন ইত্যাদি।

মনে রাখবেন, ডার্ক ওয়েব অপরিচিত এবং অবৈধ কার্যকলাপের একটি অন্ধকার অংশ। ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করলে আপনি আইনের মধ্যে বিপর্যয়ে পড়তে পারেন এবং আইনকানুনের প্রতিষ্ঠানগুলি আপনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে। সুতরাং, ডার্ক ওয়েব ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাবধানতা এবং সম্পূর্ণ আইনমান ওয়েব ব্রাউজিং নীতিমালা অনুসরণ করবেন।

মোবাইল দিয়ে কিভাবে ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করতে হয়?

ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করতে হলে আপনার মোবাইলে কিছু স্পেশাল কনফিগারেশন করতে হবে। এই প্রক্রিয়াটি বিভিন্ন মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমের মধ্যে ভিন্নভাবে করা হতে পারে। নীচে আপনার ব্যবহারকৃত মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমে ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করার পদক্ষেপগুলো দেওয়া হলো।

আইফোন:
আপনার আইফোনে ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করতে প্রথমে Safari ওপেন করুন। তারপর সামনের প্যানেলে "AA" এই বাটনে ট্যাপ করুন। এরপর "Website Appearance" অপশনে চলে যান এবং "Always" সিলেক্ট করুন। এইভাবে আপনি ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করতে পারবেন।
অ্যান্ড্রয়েড:
অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করতে আপনার ব্রাউজারে কিছু সেটিং করতে হবে। সবচেয়ে প্রথমে আপনার ব্রাউজার খুলুন এবং সেটিংসে যান। পরে আপনার পছন্দের ব্রাউজারের জন্য একটি ডার্ক থিম পছন্দ করুন বা ডার্ক মোড সক্রিয় করুন। এইভাবে আপনি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করতে পারবেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ ডার্ক ওয়েব একটি অবৈধ ওয়েবসাইটের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার কারণে এটি আইনত সাময়িকভাবে ব্যবহার করা নিষেধ। ডার্ক ওয়েবে অপ্রকাশিত কিছু নিয়ম ও শর্তাদি আছে যা সামরিকভাবে অনুসরণ করা উচিত। অবিলম্বে সকলকে বলা হচ্ছে সাবধান থাকুন এবং আইনের মধ্যে থেকে কোন অবৈধ কাজ করবেন না।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url