ফরজ গোসলের নিয়ম

বিভিন্ন কারণে আমাদের গোসল ফরজ  হয়। কিন্তু আমরা অনেকেই ফরজ গোসল কিভাবে করতে হয় তা জানিনা। কিন্তু আমাদের সকলের ফরজ গোসলের নিয়ম জানা উচিত। তাই আজকের এই পোস্টে আলোচনা করব ফরজ গোসলের নিয়ম সম্পর্কে। 

Image

তিনটি কাজ করার মাধ্যমে গোসল ফরজ হয়। আবার ৪ কাজ থেকে অব্যাহতির পর ফরজ গোসল করতে হয়।

পেজ সূচিপএঃ ফরজ গোসলের নিয়ম -  ফরজ গোসলের দোয়া

ফরজ গোসল কি?

“গোসল” একটি আরবি শব্দ। বিভিন্ন অঞ্চলভেদে এটিকে কেউ স্নান করা বা নাইতে যাওয়া বলে থাকে।তবে আরবি গোসল শব্দের সঠিক অর্থ হচ্ছে “পুরো শরীর ধৌত করা”। ইসলামী পরিভাষায় আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় পবিত্র পানি দ্বারা পুরো শরীর ধৌত করাকে গোসল বলে। আর যখন শরীরে কোনো নাপাকি বস্তু লেগে যায় তখন শরীর পাক করার জন্য যে গোসল করা হয় তাকে ফরজ গোসল বলে।

গোসল ফরজ হওয়ার কারণ

০১. নারীদের মাসিক বন্ধ হওয়ার পর পবিত্র হওয়ার জন্য গোসল করা ফরজ।

০২. সন্তান প্রসব করার পর নেফাসের রক্ত বন্ধ হলে পবিত্র হওয়ার জন্য নারীদের গোসল করা ফরজ।

০৩. একটি নারী পুরুষের-যৌন মিলন, স্বপ্নদোষ বা যেকোন উপায়ে বীর্যপাত হলে গোসল করা ফরজ। আল্লাহ তায়ালা বলেন,

وَإِن كُنتُمْ جُنُبًا فَاطَّهَّرُواْ

 অর্থঃ “আর যদি তোমরা অপবিত্র হও তবে সারা দেহ পবিত্র করে নাও।”(সূরাঃ মায়েদা, আয়াতঃ ৬)

০৪. জীবিতদের জন্য মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেওয়া ফরজ।

গোসলের ৩ ফরজ

০১.গড় গড়িয়ে কুলি করা। (বুখারী, ইবনে মাজাহ)

০২.নাকে পানি দেওয়া। (বুখারী, ইবনে মাজাহ)

০৩.সমস্ত শরীর ধৌত করা। (আবু দাউদ)

ফরজ গোসলের নিয়ম

০১. বিসমিল্লাহ বলে শুরু করা। তবে গোসলখানা ও টয়লেট একসাথে থাকলে বিসমিল্লাহ মুখে উচ্চারণ না করে বলা।

০২. উভয় হাতের কব্জি পর্যন্ত ধোঁয়া।

০৩. লজ্জাস্থান পরিষ্কার করা। বাম হাতের মাধ্যমে লজ্জাস্থান পরিষ্কার করা। সম্ভব হলে প্রসাব করে নেওয়া এতে করে সমস্ত নাপাকি বের হয়ে যাবে।

০৪. কাপড়ে অথবা শরীরের কোথাও নাপাকি লেগে থাকলে তা পরিষ্কার করে নেওয়া।

০৫.কুলি করা, নাকে পানি দেওয়া এরপর সমস্ত শরীর ভালোভাবে ধৌত করা যেন শরীরের একটি লোমকূপও শুকনো না থাকে।

০৬. এরপর গোসলের স্থান ত্যাগ করে দুই পা ভালোভাবে পরিস্কার করে নেওয়া।

ফরজ গোসলের দোয়া

نويت الغسل لرفع الجنابة –

উচ্চারণঃ “নাওয়াইতুল গোসলা লিরাফাইল জানাবাতি।”

অর্থঃ “আমি নাপাকি থেকে পাক হওয়ার জন্য গোসল করছি।”

শেষ কথা

আল্লাহ তাআলা প্রত্যেক মুসলমানদের গোসল করার সময় উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো খেয়াল রাখার এবং যথাযথভাবে গোসল করার তৌফিক দান করুন। আমীন।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url